ওয়েবসাইটে Google Adsense Approve পায়ার নিয়ম ,


how to get google adsense approval in 1 minute adsense requirements for blogger adsense requirements for wordpress google adsense login

ওয়েবসাইটে Google Adsense Approve পায়ার নিয়ম ,



আসসালামুআলাইকুম আপনারা সকলে কেমন আছেন আমি মনে করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন আজকের এই পর্বে আমরা জানবো যেকোনো ওয়েবসাইটের কিভাবে খুব সহজেই অ্যাপ্রভাল নিবেন আমরা অনেকেই আছি যারা তুবে ভিডিও দেখে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে ওয়েবসাইট তৈরি করার পর অনেকেই অনেকভাবে চেষ্টা করি চেষ্টা করা হলে আমাদের এডসেন্স কোন কারণবশত অ্যাপ্রভাল হয়না কিন্তু কেন হয় না এটা হয়তো আমরা অনেকেই জানি আবার অনেকেই জানি না আবার অনেকে আছে যারা ওয়েবসাইটে অনেক খাটাখাটনি করার পর দু'একবার এডসেন্সে এপ্লাই করার পর যখন অ্যাপ্রুভ হয়না তখন তারা এডসেন্স এ কাজ করা ছেড়ে দেই আপনারা অবশ্যই এড়িয়ে চলবেন অবশ্যই মনে রাখবেন চেষ্টা আপনাকে একবার না অনেকবার করতে হবে আমাদের এই সাইটে আছে এই সাইটটির কিন্তু এখন পর্যন্ত অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল হয়নি বা হচ্ছে না আমি আশা ছেড়ে দিয়েছি না আমি কিনতু একদমই আশা ছাড়িনি তো প্রিয় ভাই ও বোনেরা স্ত্রীর পর্দা বা জানব কি কি নিয়ম গুলো ফলো করলে আপনাদের ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল হবে সবাইকে করতে হবে ?


চলুন তাহলে এখন আমরা মেইন আলোচনা পর্বে চলে যাই


পথ আপনারা একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য ব্লগারে কি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিবেন ভালো একটি থিম ইউজ করবেন এডসেন্স ফ্রেন্ডলি আমরা অনেকেই আছি যারা আমরা কোন সিমে এসএমএস অ্যাপ্রুভ হবে সেইটা জানি না অথবা কোন তিনটি অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল ফলে আমরা অনেকেই আমাদের এমন ইচ্ছা মত একটা থিম নিয়ে ওটাকে কাস্টমাইজ করে কিছু পোস্ট করে আমরা এর জন্য আবেদন করি তারপর আমাদের ওয়েবসাইটটি গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল হয়না অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল পেতে হলে অবশ্যই আপনাদেরকে এডসেন্স ফ্রেন্ডলি মোবাইল ফ্রেন্ডলি ইউজার ফ্রেন্ডলি একটি থিম ইউজ করতে হবে দুই নাম্বারে অবশ্যই আপনারা অ্যাডসেন্সে আবেদন করার আগে আপনারা আপনাদের ওয়েবসাইটটিতে মিনিমাম ত্রিশটি পোস্ট করতে হবে অবশ্যই প্রতিটা পোস্ট আপনার নিজের লেখা হতো হবে আপনি যদি অন্য কোন ওয়েবসাইট থেকে অথবা কোন বই বস্তু দেখে যদি আপনারা সেগুলা লিখেন তাহলে আপনাদের এডসেন্স একটিভ না হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকবে এবং সেই সাথে অবশ্যই আপনারা যে আর্টিকেলগুলো লিখবেন যে পোস্টগুলো করবে সেগুলোর সাথে সাথে একটি ইমেজ অথবা একটি পিকচার ব্যবহার করতে হবে অবশ্যই পিকচার গুলা আপনাদের নিজের হতে হবে এখনো তো আপনার অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন যে আমি ইপি এত পিকচার পাব ,


How to get google adsense approval


কোথায় বাবাতো ফটোগ্রাফার না পিকচার তুলে আনা সম্ভব না এটা সমাধান আছে আপনি চাইলে অনলাইন থেকে যেকোন জায়গা থেকে আপনি পিক গুলা কালেক্ট করতে পারেন যেটা আপনি আপনার ওয়েবসাইটে আর্টিকেল অথবা পোষ্টের মধ্যে দিবেন সেই সাথে অবশ্যই ইমেজ অথবা পিকচারটি নেওয়ার পর আপনারা আপনাদের মোবাইল অথবা কম্পিউটার এর মাধ্যমে ফটো ডিলিট করে নিবেন যেমন আপনি যে ফটোটি ব্যবহার করবেন সেই ফটোটি কালার পরিবর্তন করে দিবেন দেখা এক করে দিবেন এবং অবশ্যই চেষ্টা করবেন সেই ইমেজ অথবা পিকচারের মধ্যে আপনাদের ওয়েব সাইটের নামটা যেন কোন একটা অংশে থাকে তাহলে গুগল এটাকে অনেক মূল্যায়ন করে আশাকরি আপনার বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন তো এবার গেল পিকচার এবং পোস্ট এখন শুধুমাত্র পোস্ট করলে হবে না আপনি কিছু লাইন অথবা কিছু ওয়ার্ড লিখে পোস্ট করে দিলেন তাহলে কিন্তু হবেনা আমরা যখন ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করে অথবা ওয়েবসাইটে যখন আর্টিকেল দেখি আমাদেরকে দেখার নিয়ম কারণ আছে নিয়ম কারণ নামে নেই কিন্তু আমাদের কাজ করতে হয় প্রিয় বন্ধুগণ  অবশ্যই আপনারা এ বিষয়গুলো খেয়াল রেখে ওয়েবসাইটে লিখবেন এবং প্রতিটা আর্টিকেল প্রতিটা পোস্ট আপনাদের অবশ্যই 1,000 ওয়ার্ডের উপরে হতে হবে যদি এরকম হয় তাহলে কিন্তু আপনাদের ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স এর জন্য আবেদন করলে লো ভ্যালু কন্টেন আসতে পারে তার জন্য অবশ্যই আপনাদের ওয়েবসাইটে লেখাগুলো অনেক বড় করে লিখবেন তাহলে আপনারা এই সমস্যা থেকে সমাধান পেয়ে যাবেন এরপর অবশ্যই আপনাদের ওয়েবসাইটটি গুগল সার্চ কোন ছেলের সাথে কানেক্ট করতে হবে এখনো তো আপনার অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন গুগোল সাসপেন্স সারেগামা কোথায় পাব ভাই টাকা কি তাতে কারেন্ট করলে আমাদের উপকার কি আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটটি গুগল সার্চ কোন ছেলের সাথে কানেক্ট করেন তাহলে আপনাদের ওয়েবসাইটে যত ধরনের লেখা আর্টিকেল পোস্ট আপনাদের ?


adsense requirements for blogger


ওয়েবসাইটের নাম সকল কিছু গুগলে যদি কেউ সার্চ করে বলে যদি কেউ খুঁজে তাহলে কিন্তু গুগল সার্চের মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট গুলো  খুঁজে পাওয়া যাবে যদি আপনাদের ওয়েবসাইটটি গুগোল সাসপেনশন এর সাথে কানেক্ট না করেন তাহলে আপনাদের পোষ্ট গুলা লিখা গুলো কখনো গুগলে খুঁজে পাওয়া যাবে না আর সেই ক্ষেত্রে আপনাদের এডসেন্স অ্যাপ্রুভ হবে না এই বিষয়গুলো অবশ্যই মাথায় রাখবেন এবং আপনাদের ওয়েবসাইটে যখন বিভিন্ন লেখা পোস্ট করবেন অবশ্যই বেশকিছু ক্যাটাগরি রাখবেন যেমন চুল পড়ার কারণ স্বাস্থ্য বিষয়ক টিপস খেলাধুলা নিউ ইত্যাদি টেকনোলজির সকল বিষয় নিয়ে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ক্যাটাগরি খুলে প্রতিটা ক্যাটাগরির মধ্যে আলাদা আলাদাভাবে পোস্ট করবেন তাহলে অবশ্যই আপনাদের ওয়েবসাইটে খুব তাড়াতাড়ি গুগলের অ্যাড করবে এবং গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভ হওয়ার চান্স অনেক বেশি থাকবে অবশ্যই আপনাদের ওয়েবসাইটে পাঁচটি পেজ অবশ্যই থাকতে হবে পেজ গুলোর নাম হচ্ছে এবাউট আর্থ contact-us প্রাইভেসি পলিসি এবাউট ডিসক্লেইমার টার্মস এন্ড কন্ডিশন এই ধরনের পেজগুলো অবশ্যই আপনাদের ওয়েবসাইটে থাকতে হবে এবং পতিতা পেজের মধ্যে আপনাদের কিছু না কিছু লিখা থাকতে হবে এবার আপনি যা খুশি তাই আপনি অ্যাড করেন না কেন সেগুলো কোনো সমস্যা হবে না এবং আপনাদের ওয়েবসাইটটির সাথে অবশ্যই একটি টপ লেভেল ডোমেইন কিনতে হবে এখন হয়তো আপনি অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন যে টপ লেভেল ডোমেইন কি টপ লেভেল ডোমেইন হচ্ছে ডটকম ডোমেইন আমাদের ওয়েবসাইটের নামের পাশে ডটকম এলাকাটি কিছু টাকা দিয়ে কিনতে হয় এটা অনেক ওয়েবসাইটে পাওয়া যায় কেউ কম কেউ বেশী দামে বিক্রি করে আপনারা এগুলা ইউটিউবে !


google adsense login


অথবা ভূগোলে অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করলেই পেয়ে যাবেন অবুঝ এই বিষয়গুলা আপনাদের মাথায় রাখবেন এখন হয়তো বা আপনারা অনেকেই প্রশ্ন করতে পারেন আমি যদি আমার ওয়েবসাইটে টপ-লেভেল ডোমেইন অ্যাড না করি তাহলে কি এডসেন্স এপ্রুভ হবে না এই প্রশ্নের উত্তর হলো হ্যাঁ অবশ্যই হবে আমার দেখা আমি অনেক ওয়েবসাইট দেখেছি যারা টপ-লেভেল ডোমেইন নাকি নেই অ্যাডসেন্সে প্রুফ পেয়েছে আপনিও পাবেন কিন্তু গুগলের নিয়ম অনুযায়ী টপ-লেভেল ডোমেইন হলে আপনাদের ওয়েব সাইটটি অনেক তাড়াতাড়ি এডসেন্স অ্যাপ্রুভ হবে এবং আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা আমাদের একটা ওয়েবসাইট খুলে 45 দিনের মধ্যে বেশ কিছু পোস্ট করে আমরা এডসেন্স এর জন্য আবেদন করে ফেলি সেই ক্ষেত্রে আমাদের গুগল এডসেন্স কি এপ্রুভ হয় না বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে এবং আমি আমার নিজের পার্সোনাল লাইফের অভিজ্ঞতা থেকে বলতেছি আপনাদের জমিনে বয়স অবশ্যই এক মাসের উপরে হলে খুব তাড়াতাড়ি গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল পাবেন যদি আপনার সবকিছু ঠিকঠাক থাকে যদি এক মাসের কম সময় হয় তাহলে কিন্তু আপনারা একচেঞ্জ জে পাবেন না বিষয়টা এরকম না তবে একটু ঝামেলা হতে পারে তার জন্য বলব একটি ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে কাস্টমাইজ করতে আর্টিকেল পোস্ট লিখতে মিনিমাম একমাত্র সময় লাগে এবং চাইলে আপনারা দিনরাত সারাক্ষণ কাজ করে আপনারা মাত্র কিছুদিনের মধ্যেই এটা ফিলাপ করতে পারেন কিন্তু আমি আপনাদেরকে পরামর্শ দিব ফুটপাত তাড়াহুড়া কোন জিনিসই ভালো না তার জন্য বলতেছি অবশ্যই আপনারা একটা মাস সময় নিয়ে প্রতিদিন কিছু কিছু পোস্ট করবেন আপনাদের ওয়েবসাইটে তাহলে ওয়েবসাইটে পোস্ট লেখা পরিমাণ অনেক বেশি হয়ে যাবে তাহলে ?


Minimum traffic for adsense approval Bangla Tips 2022


আপনাদের ওয়েবসাইটে গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল হতে খুব সহজ হবে এই বিষয়গুলো মাথায় রেখে যদি আপনারা আপনাদের ওয়েবসাইটে কাজ করেন আশা করি খুব তাড়াতাড়ি আপনাদের ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এর সাথে একটিভ হয়ে যাবে আরে বিষয়গুলো যদি আপনারা খেয়াল না করে কাজ করেন তাহলে কিন্তু আপনাদের ওয়েবসাইটটি গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল পেতে একটু ঝামেলা হতে পারে চলুন তাহলে এখন আমরা জেনে নেই কিভাবে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটটিতে এডসেন্স এর জন্য আবেদন করব প্রথমত চলে যাবেন আপনি আপনার অ্যাডসেন্সে পুরনো এডসেন্স যেখানে আপনার আগে থেকে এডসেন্স ছিল অথবা আছে আপনার অ্যাডসেন্সে ঢোকার পর বাম পাশে দেখবেন লেখা আছে সাইট সেখানে চলে যাবেন যাওয়ার পর দেখতে পাবেন লেখা আছে এক্সাইড ডানপাশে উপরে নীল কালারের একটা বাটন দেখতে পাবেন সেখানে যাওয়ার পর আপনারা আপনাদের ওয়েবসাইটে নামটা এখানে দিবেন ফর সাবমিট নামক একটা বাটন আসবে সেখানে আপনাদেরকে এখানে যাওয়া লাগবে তার গুগল অ্যাডসেন্স থেকে কিছু কোড দিবে সেই কোডটা অবশ্যই আপনি আপনার ওয়েবসাইটে যাওয়ার পর থিম অপশনে চলে যাবেন সেখানে যাওয়ার পর এডসেন্স থেকে যে কোড গুলা দিয়েছিল সেই কোডটি এখানে বসিয়ে সেভ করে দিবেন তারপর আপনি আবার চলে যাবেন আপনার গুগোল অ্যাডসেন্সে এখানে আসার পর আপনারা ওইখান থেকে সাবমিট অথবা রিকুয়েস্ট রিভিউ এই বাটনে মধ্যে একটিভ করে দিবেন তাহলে সাথে সাথে আপনাদেরকে দেখাবে আপনার সাইটটি রিভিউতে আছে আপনাদের ওয়েবসাইটে যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে এবং আমি যে নিয়ম গুলো ফলো করে করার জন্য বলেছি সেই নিয়ম গুলো ফলো করে দিতে আপনারা কাজ করেন তাহলে আমি আশা করি আপনাদের ওয়েবসাইটটি দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে গুগল অ্যাডসেন্স এপ্রুভ হয়ে যাবে আর যদি আপনাদের ওয়েবসাইটটিতে কোনরকম সমস্যা থাকে তখন তারা জানিয়ে দিবে যা শুনে কি কারনে !



আপনার ওয়েবসাইটটি গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল হচ্ছে না পরবর্তীতে সেই সমস্যাগুলো ঠিক করে আবার আবেদন করার পর যদি গুগোল অ্যাডসেন্সে কাছে মনে হয় আপনার ওয়েবসাইটটি এখন পুরোপুরি পারফেক্ট আছে তখন আপনাদের ওয়েবসাইটটি গুগোল অ্যাডসেন্সে একটিভ করে দেবে দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে তবে আপনাদের ওয়েবসাইটে যদি কোথাও সমস্যা থাকে যদি এডসেন্স অ্যাপ্রুভ না হয় তাহলে আপনাদের রিপ্লে পেতে অনেক দিন সময় লাগবে যেটা আমি আমার নিজের পার্সোনাল লাইফের অভিজ্ঞতা থেকে আপনাদেরকে বলতেছি আশা করি আপনাদেরকে সম্পূর্ণ বিষয়টা বুঝাতে পেরেছি এরপর যদি অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভে হয় তাহলে থেকে কিছু কোড আসবে সেই কোড গুলো আপনি আপনার ওয়েবসাইটে কানেক্ট করার সাথে সাথে আপনার ওয়েবসাইটে যারা ঢুকবে তারা সেই বিজ্ঞাপন অথবা অ্যাড গুলো দেখতে পাবে আর সেই বিজ্ঞাপন দেখার মাধ্যমে আপনাদের সেন্সে মোটামুটি ভালো একটা টাকা ইনকাম হবে সেই টাকাটা প্রতিমাসে আপনাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এ গুগল অ্যাডসেন্স কোম্পানি পাঠিয়ে দিবে প্রিয় বন্ধুগন আমি আমার জায়গা থেকে যতটুকু জ্ঞান যতটুকু আমি জানি এতটুকু আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম এরপরও যদি আপনাদের বুঝতে কোথাও কোন সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন অথবা আমাদেরকে ইমেইল করতে পারেন ফোন করতে পারেন আমরা চেষ্টা করব আপনাদের কে সহযোগিতা করার জন্য ধন্যবাদ সবাইকে আমাদের ওয়েবসাইটে লেখাগুলা কষ্ট করে পড়ার জন্য !


Post a Comment

0 Comments